Our blog

64 / 100

 

Everest Tea

৬টি পরামর্শ নিন, হয়ে যান চা বিশেষজ্ঞ

পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় পানীয়ের একটি চা। দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে এটি অভ্যাস হয়ে মিশে গেছে। গরম বা শীত, সকালে এক কাপ চা না খেলে দিনের শুরু হয় না, এমন মানুষের সংখ্যা গুনে শেষ করা যাবে না।

বিশ্বে ইংলিশরা চা নিয়ে বহু মাতামাতি করে। একে রীতিমতো ব্রিটেনের জাতীয় পানীয় বলে মন্তব্য করা হয়। সম্প্রতি ইস্ট ইন্ডিয়া কম্পানি বিশেষজ্ঞ অ্যাডম বোল্টকে নিমন্ত্রণ করেন তাদের লন্ডনের রিজেন্টস স্ট্রিটের অফিসে। প্রতিষ্ঠানের প্রধান চায়ের স্বাদ পরীক্ষাকারী লালিথ লেনাডোরা। সেখানে বোল্টকে চায়ের অপূর্ব স্বাদের গোপনীয়তা শিখিয়েছেন লালিথ।

১. ধরন : চায়ের মৌলিক কয়েকটি ধরন রয়েছে। ব্ল্যাক, হোয়াইট, গ্রিন এবং ওলং টি। সবগুলো ক্যামেলিয়া সাইনেনসিস গাছ থেকে এসেছে। এই ৪ ধরনের চায়ের পার্থক্য জেনে নিন।

ক. হোয়াইট টি তৈরি হয় ন্যূনতম প্রক্রিয়াজাতকরণ পদ্ধতি ও অক্সিডাইজের মধ্য দিয়ে। এতে সবচেয়ে বেশি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ন্যূনতম ক্যাফেইন থাকে। চা গাছের অঙ্কুর থেকে এটি তৈরি হয়।

খ. গ্রিন টি তৈরি হয় ফসল তোলার পর চা পাতাকে প্যানে ভেজে অথবা বাষ্পে ভিজিয়ে। এর স্বাদ অনন্য ও বৈচিত্র্যপূর্ণ হয়ে থাকে। হোয়াইট টি থেকে এতে ক্যাফেইনের পরিমাণ বেশি থাকে।

গ. ব্ল্যাক টি ব্রিটেনে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে। নানা প্রক্রিয়ায় পানের উপযোগী করা হয়। পাতা সংগ্রহের পর একে শুকিয়ে ফেলা হয়। ফার্মেন্টেশনও চলে। এতে গন্ধ বহুগুণ বেড়ে যায়। ক্যাফেইনসমৃদ্ধ হয় অন্যগুলোর চেয়ে। তবে একে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট অনেক কম থাকে।

ঘ. ওলং চা চীন এবং বেশ কিছু মহলে বেশ জনপ্রিয়। চা পাতাকে হালকা অক্সিডাইজ করা হয়। ক্যাফেইনের পরিমাণ গ্রিন টি ও ব্ল্যাক টিয়ের মাঝামাঝি অবস্থায় থাকে। পাতাগুলো পেঁচানো অবস্থায় থাকে।

২. সঠিক প্রস্তুত প্রক্রিয়া : গরম পানিতে চা ফেলে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে মগে নেওয়া আর তাতে দুধ-চিনি দিয়ে উপভোগ করা। আর টি-ব্যাগ ব্যবহার করলে পরে দুধ-চিনি মিশ্রিত পানিতে পরে তা দিতে হয়। লালিথ বিভিন্ন ধরনের চায়ের ক্ষেত্রে পানিতে চা ফোটানোর নির্দিষ্ট নিয়মের কথা জানিয়েছেন।

ক. ব্ল্যাক টি বানানোর ক্ষেত্রে প্রতি কাপ চায়ের জন্যে ২-২.৫ গ্রাম চা পাতা দিতে হবে। একে ১০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার পানিতে ৪-৫ মিনিট ফোটাতে হবে।

খ. হোয়াইট টিয়ের ক্ষেত্রে এক কাপ পানিতে ২.৫-৩ গ্রাম চা নিতে হবে। একে ৬৫-৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে দেড় মিনিট ফোটাতে হবে।

গ. গ্রিন টি বানাতে এক কাপের পানি ৮৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে নিয়ে তাতে ২.৫ গ্রাম চা ৩ মিনিট ধরে ফোটাতে হবে।

ঘ. ওলং চায়ের জন্যে এক কাপ পানি ৮৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় নিয়ে তাতে ২.৫ গ্রাম চা ৩ মিনিট ধরে ফোটাতে হবে।

৩. যেভাবে স্বাদ নিতে হবে : লালিথ জানান, হালকা একটা চুমুক দিতে হবে জিহ্ববার ব্যবহারে। দ্বিতীয় চুমুকে চা জিহ্বার নিচের অংশে নিয়ে পূর্ণ স্বাদ উপভোগ করুন। এতে জিহ্ববার স্বাদ গ্রহণকারী গ্রন্থিগুলো জেগে উঠবে। এবার পুরোদমে পান করে যান।

৪. গুণগত মান বজায় রাখুন : অনেক বড় ব্র্যান্ডের চা কম্পানি রয়েছে যারা পাতা সংগ্রহে বিশাল সব মেশিন ব্যবহার করে। অথচ চা গাছের কুঁড়ির সবচেয়ে ওপরের দুটো পাতাই সংগ্রহ করতে হয়। এতে হাতের ব্যবহারই সর্বোৎকৃষ্ট। তাই ভালো মানের চা খেতে হলে তার গুণগত মান সম্পর্কে জেনে নিতে হবে।

# সংগৃহিত#

Read Our AriclesNew

No Results Found

The page you requested could not be found. Try refining your search, or use the navigation above to locate the post.

0 Comments

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Pin It on Pinterest

Share This